আবাহনী প্রমাণ করতে চায় ‘ওটা অঘটন ছিল’

[ad_1]

প্রিমিয়ার লিগে আজ আবাহনীর মুখোমুখি হচ্ছে মোহামেডান। ফাইল ছবি

দর্শকপ্রিয় দুই ক্লাবের দ্বৈরথের উত্তাপ উবে গেছে প্রায় এক যুগ আগেই। স্টেডিয়ামপাড়া দূরে থাক, দুই ক্লাবে চত্বরেও পাওয়া যায় না লড়াইয়ের কোনো আমেজ। এটা যেন দেশের ঘরোয়া ফুটবলে আর দশটা সাধারণ ম্যাচের মতোই। তবু নাম দুটি যখন আবাহনী-মোহামেডান, ম্যাচের আবেদন কিছুটা হলেও থেকে যায়

সময়টা এমন-ই যে ফুটবলপ্রেমীদের জানাতে হচ্ছে, আজ আবাহনী-মোহামেডান ফুটবল ম্যাচ আছে। প্রিমিয়ার লিগে প্রথম পর্বে আজ সন্ধ্যা সাড়ে ছটায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হচ্ছে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দল। তবে বর্তমান সময়ে আবাহনী-মোহামেডানের সঙ্গে ‘চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী’ কথাটি একটু বাড়াবাড়ি মনে হতে পারে।

দর্শকপ্রিয় দুই ক্লাবের দ্বৈরথের উত্তাপ উবে গেছে প্রায় এক যুগ আগেই। স্টেডিয়ামপাড়া দূরে থাক, দুই ক্লাবে চত্বরেও পাওয়া যায় না লড়াইয়ের কোনো আমেজ। এটা যেন দেশের ঘরোয়া ফুটবলে আর দশটা সাধারণ ম্যাচের মতোই। তবু নাম দুটি যখন আবাহনী-মোহামেডান, ম্যাচের আবেদন কিছুটা হলেও থেকে যায়।

সাম্প্রতিক বছরে দুটি দল মুখোমুখি হওয়ার মানেই ধরে নেওয়া হয়, জয় পেতে যাচ্ছে আবাহনী। এবার অবশ্য তেমন কিছু শোনা যাচ্ছে না। অস্ট্রেলিয়ান কোচ শন লেনের হাত ধরে গত মৌসুমের দ্বিতীয় পর্ব থেকে বদলে গিয়েছে মোহামেডান। গত লিগের প্রথম পর্বে আবাহনীর কাছে ৩-০ গোলে উড়ে গেলেও দ্বিতীয় পর্বে মোহামেডান ৪-০ গোলে জিতে উপহার দেয় বিস্ময়।

সেই শন লেনই বর্তমান দলটির মূল শক্তি। তরুণদের নিয়ে ৩ ম্যাচ শেষে দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট সাদা কালোদের। জাতীয় দলের সাত খেলোয়াড় নিয়ে সমান সংখ্যক ম্যাচে আবাহনীর পয়েন্ট ৭। সাইফ স্পোর্টিংয়ের সঙ্গে হারলেও অন্য দুই ম্যাচ আরামবাগ ও শেখ রাসেলের বিপক্ষে জিতেছে মোহামেডান। আর ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে ড্র করা আবাহনীর দুই জয় বাংলাদেশ পুলিশ ও রহমতগঞ্জের বিপক্ষে।

স্পষ্টত খাতা কলমের হিসেবে শক্তিতে অনেক এগিয়ে আকাশি-নীলরা। শিরোপা প্রত্যাশী হওয়ায় ম্যাচ জয়ের চাপ মূলত তাদের ওপরই। এ ছাড়া শেষ ম্যাচে ৪-০ গোলের হারটা এখনো পোড়াচ্ছে আবাহনীর পর্তুগিজ কোচ মারিও লেমোসকে , ‘এই ম্যাচের ইতিহাস আমি জানি। ডার্বি ম্যাচে সমর্থকেরা জয়ই দেখতে চায়। এ ছাড়া এই ম্যাচটি আমার জন্য বিশেষ গুরুত্বের । কারণ শেষ ম্যাচে আমরা ৪-০ গোলে হেরেছিলাম। আজ আমাদের প্রমাণ করতে হবে ওটা ছিল একটা অঘটনের মতো।’চোটের জন্য ডিফেন্ডার টুটুল হোসেন বাদশাকে পাচ্ছেন না লেমোস।

পানসে হয়ে যাওয়া আবাহনী-মোহামেডান ম্যাচে যার জন্য প্রাণ ফিরে এসেছে, তিনি মোহামেডান কোচ লেন। স্বাভাবিকভাবে আজও সমর্থকেরা উচ্ছ্বাস করে স্টেডিয়াম ছাড়ুক, সেটাই তাঁর প্রত্যাশা,‘ক্লাব ও সমর্থকদের জন্য ম্যাচটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। এই ম্যাচে সমর্থকেরা হার মানতে পারেন না। শেষ ম্যাচে তারা যেভাবে উচ্ছ্বাস করেছে, আজও তাদের সেই উচ্ছ্বাস উপহার দিতে চাই। ’

মোহামেডান হয়তো আজ পাচ্ছে না তাদের নিয়মিত গোলরক্ষক মোহাম্মদ সুজনকে। চোটের জন্য তাঁর খেলার সুযোগ কম বলে জানিয়েছেন দলের ম্যানেজার ইমতিয়াজ আহমেদ নকিব। সুজনের জায়গায় পোস্টের নিচে দেখা যেতে পারে অভিজ্ঞ গোলরক্ষক মাজহারুল ইসলাম হিমেলকে।



[ad_2]

Source from @ www.prothomalo.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *