ব্যাটসম্যান যে কারণে আউট হয়েও হলেন না!


নো বল বিতর্ক বেশ আলোড়ন তুলেছে আজ। ছবি: শামসুল হক

বিপিএলে আজ কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স-ঢাকা প্লাটুন ম্যাচে আউট নিয়ে ঘটল নাটকীয় এক ঘটনা

বিপিএলে আজ কুমিল্লা ওয়ারিয়র্সের ইনিংসে তখন পঞ্চম ওভার। বল করছিলেন ঢাকা প্লাটুনের ওয়াহাব রিয়াজ। পঞ্চম বলে ডিপ স্কয়ার লেগে তুলে খেলেছিলেন কুমিল্লা ওপেনার ভানুকা রাজাপক্ষে। কিন্তু ধরা পড়েন ফিল্ডারের হাতে। উইকেট নেওয়ার আনন্দে মেতে ওঠে কুমিল্লা। আম্পায়ার আউট দেওয়ার আগেই মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যান রাজাপক্ষে। ঠিক তখনই ঘটল নাটকীয় এক ঘটনা।

ম্যাচের টিভি আম্পায়ার মোর্শেদ আলী খান টিভি রিপ্লেতে দেখতে পান ওয়াহাবের ডেলিভারিটি ‘নো’ ছিল। মাঠের দুই আম্পায়ার গাজী সোহেল ও প্রগথ রামবুকেওয়ালা ডেকে পাঠান রাজাপক্ষেকে। ততক্ষণে কুমিল্লার পরের ব্যাটসম্যান মাঠে ঢুকে পড়েছেন। ওদিকে মাঠের পাশে ডাগ আউটে বসে থাকা কুমিল্লার ক্রিকেটাররা ছুটে ডেকে আনতে যান রাজাপক্ষেকে। কিন্তু ঢাকার ক্রিকেটাররা তা মানবেন কেন! রাজাপক্ষে তো মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে গেছেন, এ নিয়ে মাঠের আম্পায়ারের সঙ্গে যুক্তিতর্ক চলেছে তামিম ইকবাল ও অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার। শেষ পর্যন্ত রাজাপক্ষে মাঠে ফিরেছেন এবং ব্যাটিংয়ে নামা ইয়াসির আলী ফিরে যান ড্রেসিং রুমে।

সাবেক ক্রিকেটার, ঘরোয়া ক্রিকেটে ম্যাচ রেফারির দায়িত্ব পালন করা এবং বিপিএলে টেকনিক্যাল কমিটির প্রধান রকিবুল হাসান প্রথম আলোকে জানালেন নিয়মটি নিয়ে, ‘এখানে আইনের কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি। বোলারের পা অন দ্য লাইন ছিল, মানে নো বল। ব্যাটসম্যান ড্রেসিং রুমে ফিরে গেলেও আম্পায়ার তাঁকে ফিরিয়ে আনতে পারেন। ব্যাটসম্যান তো বোঝেনি।’

টিভি আম্পায়ার পরীক্ষা করে দেখার আগেই মাঠ ছাড়েন রাজাপক্ষে। আইসিসির প্লেয়িং কন্ডিশনে ৩১.৭ ধারা অনুযায়ী, ওই ওভারের পরবর্তী ডেলিভারির জন্য বোলার দৌড় শুরু করার আগে আউট হওয়া ব্যাটসম্যানকে ফিরিয়ে আনতে পারেন মাঠের আম্পায়ার।

শেষ পর্যন্ত ৯৬ রানে অপরাজিত ছিলেন রাজাপক্ষে। কুমিল্লাও ৩ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ১৬০ রান।





Source from @ www.prothomalo.com

Leave a Reply